যশোরে যুবদল নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

যশোর জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি বদিউজ্জামানা ধনিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। আজ মঙ্গলবার বেলা পোনে ১২ টার দিকে যশোর শহরের শংকরপুর আকবারের মোড় এলাকায় ধনির নিজ বাসভবনের সামনে এঘটনা ঘটে।নিহত বদিউজ্জামান যশোর শহরের বেজপাড়া চোপদারপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

 

জেলা বিএনপি ও যুবদলের একাধীক সূত্র জানায়, ধনি বাড়ির সামনে দাড়িয়ে ছিলেন। এসময় সন্ত্রাসীরা তাকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে।স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাসপাতালের সার্জারী ওয়ার্ডে অস্ত্রোপচারের সময় দুুুপুুর সাড়ে ১২ টার দিকে তিনি মারা যান।

জানা গেছে, আজ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বদিউজ্জামান বাড়ির সামনের দোকানে বসেছিলেন। এ সময় রিকশায় করে কয়েকজন সেখানে গিয়ে জামার কলার ধরে টেনেহিঁচড়ে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে বদিউজ্জামানকে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করান। এর কিছুক্ষণ পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

dhakapost

 

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাইফুর রহমান জানান, মারামারির ঘটনায় আহত ওই রোগীকে ভর্তির কিছুক্ষণ পরই ওয়ার্ডে তার মৃত্যু হয়েছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির সাংবাদিকদের জানান, দুর্বৃত্তদের ছুরির আঘাতে যুবদল নেতা বদিউজ্জামানের মৃত্যু হয়েছে। তবে কারা কী কারণে তাকে হত্যা করেছে তা তাৎক্ষণিকভাবে বলা যাচ্ছে না। দুর্বৃত্তদের আটকের জন্য পুলিশের কয়েকটি দল মাঠে রয়েছে।

 

যশোর জেনারেল হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের কনসালটেন্ড ডাক্তার এনকে আলম বলেন প্রচুর রক্তক্ষরণের কারনে তার মৃত্যু হয়েছে।