শার্শায় স্ত্রীকে মারধরের সময় ধাক্কায় আলমারির গ্লাস ঢুকে স্বামীর মৃত্যু

যশোর জেলার শার্শা উপজেলায় স্বামীর মারধরের সময় স্ত্রীর ধাক্কায় ঘরে থাকা আলমারির গ্লাস বুকে ঢুকে স্বামী শাহিন হোসেনের (২৫) মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় স্ত্রী খাদিজা খাতুনকে (২০) আটক করা হয়েছে।

 

বুধবার (২০ জুলাই) উপজেলার সোনাতনকাটি গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত শাহিন সোনাতনকাটি গ্রামের জিয়াদ আলীর ছেলে।

 

প্রতক্ষ্যদর্শী ও পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, শাহিন ছিলেন একজন মাদকসেবী। মাদকসেবন করে প্রায় স্ত্রী খাদিজা খাতুনকে মারধর করতেন। ঘটনার দিন তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি চলতে থাকে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে শাহিন স্ত্রী খাদিজাকে মারধর করতে থাকে। এ সময় মারধরের হাত থেকে বাঁচতে শাহিনকে ধাক্কা দিলে ঘরে থাকা আলমারির ওপরে গিয়ে পড়েন শাহিন। এ সময় আলমারির গ্লাস ভেঙে বুকে ঢুকে গেলে মারাত্মকভাবে আহত হন তিনি। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে শাহিনের মৃত্যু হয়।

 

এ বিষয়ে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান জানান, খবর পেয়ে নাভারন সার্কেলের এএসপি মহোদয়সহ পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শষ্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

নিহতের স্ত্রী খাদিজাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছেন।