আফগানিস্তানের মাটি ছাড়ার আগে ৭৩টি বিমান অকেজো করে গেছে মার্কিন বাহিনী

আফগানিস্তানের মাটি ছাড়ার আগে কাবুল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বহুসংখ্যক বিমান অকেজো করে রেখে গেছে মার্কিন সামরিক বাহিনী। একইসঙ্গে বহু সাজোয়া যান এবং বিমানবন্দরে থাকা উচ্চ-ক্ষমতা সম্পন্ন রকেট প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও অকার্যকর করে দেওয়া হয়েছে।

মার্কিন সামরিক বাহিনীর এক জন জেনারেলের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি। সোমবার মার্কিন সামরিক বাহিনী কাবুল ছেড়ে যাওয়ার ঠিক আগমুহূর্তে এসব বিমান, সাজোয়া যান এবং রকেট প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা অকেজো করে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান জেনারেল কেনেথ ম্যাকেঞ্জি জানিয়েছেন, সোমবার কাবুল ছেড়ে চলে আসার আগে হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবস্থান করা ৭৩টি বিমানের সামরিক সক্ষমতা নষ্ট অথবা অকেজো করে দিয়েছেন মার্কিন সেনা সদস্যরা।

তার ভাষায়, ‘ওইসব বিমান আর উড্ডয়ন করতে পারবে না। কেউই সেগুলো আর কখনো সেগুলো সচল করতে বা পরিচালনা করতে পারবে না। নিশ্চিতভাবেই সেগুলো আর কখনোই আকাশে উড়তে পারবে না।’

জেনারেল কেনেথ ম্যাকেঞ্জি জানান, বিমান অকেজো করার পাশাপাশি কাবুল বিমানবন্দরে ফেলে আসা ৭০টি এমআরএপি সামরিক যান এবং ২৭টি হামভি সামরিক যানও অকেজো করে দেওয়া হয়েছে। এসব সামরিক যানও আর কেউই কখনও ব্যবহার কতে পারবে না। এসব সামরিক যানের প্রতিটির মূল্য প্রায় ১০ লাখ মার্কিন ডলার।

এছাড়া কাবুল বিমানবন্দরে মোতায়েন থাকা উচ্চ-ক্ষমতা সম্পন্ন রকেট প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও অকার্যকর করে দেওয়া হয়েছে বলে জানান মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান এই জেনারেল।

মার্কিন সেনারা কাবুল ছাড়ার একেবারে আগমুহূর্ত পর্যন্ত এই ব্যবস্থা সচল থাকলেও সফলভাবে তা অকেজো করেই আফগান ভূখণ্ড ত্যাগ করেন দেশটির সেনারা।