৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে ৮ মাস ধরে ধর্ষণ! ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার ফরমাইশখানা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ ম শ্রেণীর এক ছাত্রী একই এলাকার ৫০ বছর বয়সী এক লম্পট কর্তৃক চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে আগস্ট মাস পর্যন্ত ৮ মাসে একাধিকবার ধর্ষণের শিকার হয়েছে। বর্তমানে মেয়েটি ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

এ ব্যাপারে অন্তঃসত্ত্বা মেয়েটির বাবা মোঃ জাফর আলী দিঘলিয়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১ তাং ০১/০৯/২০২১।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, দিঘলিয়া উপজেলার ফরমাইশখানা ৮ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মোঃ জাফর আলীর ৫ম শ্রেনী পড়ুয়া ছাত্রীকে একই গ্রামের ৭ নং ওয়ার্ডের ৫০ বছর এক লম্পট বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে চলতি বছরের ২ জানুয়ারী আনুমানিক সকাল ১০ ঘটিকার দিকে তাঁর ঘরের ভীতর নিয়ে প্রথমে ধর্ষন করে। সেই থেকে আগষ্ট মাস পর্যন্ত মেয়েটি একাধিকবার ঐ লম্পট কর্তৃক ধর্ষনের শিকার হয়।

২৯ আগস্ট মেয়েটি শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে তার মা বাবা মেয়েটিকে নগরীর ফুলবাড়িগেট দারোগা বাজার মমতা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যায়। ঐ ক্লিনিকের কর্তব্যরত চিকিৎক ডাঃ মততাজ রফিক মেয়েটির বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাঁর বাবা মা’কে জানান, আপনার মেয়ে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। একলাকাবাসী দ্রুত ধর্ষনকারী ঐ লম্পটের গ্রেপ্তারের জোর দাবী জানিয়েছন।