দামুড়হুদা সিমান্তে প্রায় আড়াই কোটি টাকার স্বর্ণ আটক

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার ঠাকুরপুর সীমান্তের নিকট থেকে ৩ কেজি ৭৪০ গ্রাম (৩২০.৬৪ ভরি) ওজনের ১১টি স্বর্ণের বার জব্দ করেছে চুয়াডাঙ্গা-৬বিজিবি।

বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সীমান্তের বাংলাদেশের ২ কিলোমিটার অভ্যন্তর থেকে এই স্বর্ণ পরিত্যাক্ত অবস্থায় জব্দ করা হয়।

চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক নিস্তার আহমেদ আজ বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে জানান,

গোপন সংবাদের ভিতিত্বে তিনি জানতে পারেন ভারতে একটি স্বর্ণের বড় চালান পাচার হবে। এমন সংবাদের ভিত্তিত্বে তার নেতৃত্বে ঠাকুরপুর বিওপির টহল কমান্ডার সুবেদার কাজী আজাদ এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে একটি টহল দল উপজেলার ঠাকুরপুর সীমান্তের মেইন পিলার ৮৯ থেকে আনুমানিক ২ কিঃ মিঃ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ঠাকুরপুর কবরস্থানের পাশের একটি আম বাগানের মধ্যে ওৎ পেতে থাকে।

এমন সময় সকাল সাড়ে ৭ টা র দিকে এক ব্যক্তি কে বাইসাইকেল চালিয়ে ভারত সীমান্তের দিকে যাওয়ার সময় টহল দল উক্ত ব্যাক্তিটিকে ধাওয়া করে। এসময় ঐ ব্যক্তি বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে তার কাছে থাকা একটি কাপড়ের ব্যাগ ফেলে পালিয়ে যায়। টহল দল কাপড়ের ব্যাগটি উদ্ধার করে।

পরে ব্যাগ খুলে ৩ কেজি ৭৪০ গ্রাম (৩২০.৬৪ ভরি) ওজনের উন্নত মানের ১১ টি বিভিন্ন সাইজের স্বর্ণের বার ও বাইসাইকেল জব্দ করে। এই স্বর্ণের আনুমানিক মূল্য দুই কোটি পয়ত্রিশ লক্ষ ছেষট্টি হাজার পাঁচশত ঊননব্বই টাকা বলে বিজিবি জানান।

স্বর্ণ চোরাকারবারী সাথে জড়িত সন্দেহে পলাতক আসামি ঠাকুরপুর গ্রামের মৃত লুৎফর বিশ্বাসের ছেলে মোস্তাাফিজুর রহমান (ফিজুর)কে (২৮) এর নাম উল্লেখ করে দামুড়হুদার দর্শনা থানায় মামলা দায়ের করেছে।