আফগানিস্তানে জরুরি সহায়তা ঘোষণা চীনের

আফগানিস্তানে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ঘোষণা করেছে তালেবান।

 আগামী ১১ সেপ্টেম্বর নতুন সরকারের শপথ গ্রহণ হতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে রাশিয়ার সংবাদ মাধ্যম স্পুটনিক নিউজ। এদিকে আফগানিস্তানে ২০০ মিলিয়ন ইউয়ান( প্রায় ৩ কোটি ১০ লাখ ডলার) জরুরি সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে চীন।

 
আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা জানায়, চীনা সহায়তার মধ্যে থাকবে খাবার এবং করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন।আল জাজিরা জানায়, বুধবার চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই আফগানিস্তানের প্রতিবেশী কয়েকটি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে ত্রাণের হিসাব নির্ধারণ করেন।
 
 প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে পাকিস্তান, ইরান, তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান ও তুর্কমেনিস্তান। এ সময় তিনি আফগানিস্তানে জরুরী সহায়তার ঘোষণা দেন।

 
আল জাজিরা জানায়, তালেবানের গঠিত সরকারের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে চীন এই জরুরি সহায়তার বিষয়ে ঘোষণা দিয়েছে। চীন জানিয়েছে, আফগানিস্তানে শৃঙ্খলা ফেরানোর স্বার্থে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ হিসেবে গঠন করা হয়েছে নতুন অন্তর্বর্তী সরকার। 
 
ওয়াং ই জানান, চীন আফগানিস্তানকে ৩০ লাখ ডোজ করোনা ভ্যাকসিন দেয়া হবে।কিছুদিন আগেই তালেবানরা যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান পুনর্গঠনে চীনকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী আখ্যা দিয়েছে। তারা মনে করেন, চীনা বিনিয়োগ ও সহায়তায় পুনর্গঠিত হবে যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান।
 
এদিকে ওয়াং ই চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা শিনহুয়া নিউজ এজেন্সীকে জানান, ‘কিছু আন্তর্জাতিক শক্তি আফগানিস্তানে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক শক্তি ব্যবহার করে  নতুন ঝামেলা সৃষ্টির করতে পারে,”।
 
এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, আফগানিস্তানে তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেওয়ার এখনও বহু বাকি। তবে চীন উলটো রাস্তায় হেঁটে সবার আগে তালেবানকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।