খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আবারও বাড়ছে

ফাইল ছবি

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত ও মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানোর পক্ষে মত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাতে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক শীর্ষ স্থানীয় কয়েকটি গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আনিসুল হক বলেন, মুক্তির মেয়াদ ছয় মাস বাড়ানোর জন্য মতামত দিয়েছি। কিন্তু বিদেশে যাওয়ার জন্য কোনো মত দিইনি।


গত মাসে খালেদা জিয়ার স্বজনরা সাজা স্থগিত ও মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছিলেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সেই আবেদনের বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত চেয়েছিল। তার পরিপ্রেক্ষিতে আইন মন্ত্রণালয় খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত ও মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানোর পক্ষে মত দিয়েছে।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত খাদেলা জিয়া গত বছরের ২৫ মার্চ শর্ত সাপেক্ষে ছয় মাসের মুক্তি পান। এরপর গত বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর তার শর্ত সাপেক্ষে জামিনের মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানো হয়। সর্বশেষ গত ২৫ মার্চ শর্ত সাপেক্ষে জামিনের মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানো হয়।


মুক্তির পর থেকে গুলশানে ‘ফিরোজায়’ অবস্থান করছেন। মুক্তির পর কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশ নেননি তিনি। পরিবারের সদস্য ছাড়া দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গেও দেখা করেননি তিনি।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে ছিলেন খালেদা জিয়া। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রথমে পাঁচ বছরের এবং পরবর্তী সময়ে তা বাড়িয়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত।