নিশিন্দা ওষুধি গুণে সমৃদ্ধ

নিশিন্দা খাওয়ার কথা বললে চোখ-মুখ কুঁচকে ফেলবেন অনেকেই। তবে তিতা স্বাদে ভরা নিশিন্দার গুণের কারণে এর কদর যুগে যুগে সমাদৃত।

নিশিন্দা গাছের পাতা, শিকড়, ফুল এবং ফল সব কিছুই উপকারী। খুঁজলে দেশের সর্বত্রই এ গাছের সন্ধান পাওয়া যাবে।

আসুন জেনে নেই নিশিন্দার গুণগুলো সম্পর্কে:

নিশিন্দা হাঁপানি ও ঠাণ্ডাজনিত রোগে বিশেষ কার্যকরী।

নিশিন্দার পাতা পরজীবী নাশক এবং এটা যক্ষা ও ক্যান্সার প্রতিরোধক।

পা মচকে গেলে বা ফুলে গেলে নিশিন্দার পাতা গরম করে আক্রান্ত স্থানে রেখে কাপড় দিয়ে বেঁধে দিয়ে দিন। দেড়-দু’ ঘণ্টা পর পর নতুন করে লাগান। দু-এক দিনের মধ্যে আরাম পাবেন।

শরীরে কোনো স্থানে টিউমার থাকলে নিশিন্দা পাতা বেটে গরম করে প্রতিদিন লাগান। কয়েকদিনের মধ্যে ফল পাবেন।

রান্নাঘরে পোকার উপদ্রব হলে নিশিন্দার ডাল-পাতা রেখে দিন। পোকার আনাগোনা কমে যাবে।

নিশিন্দা পাতা চূর্ণ সিকি গ্রাম পরিমাণ খেলে গুঁড়া কৃমির উপদ্রব কমে যায়। তবে শিশুদের খাওয়াবেন না। প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য এটা প্রযোজ্য হবে।

কানের যেকোনো ধরনের ব্যথায় নিশিন্দা মহৌষধ হিসিবে কাজ করে।

বাতের ব্যথায় নিশিন্দা কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে।

কানে কোনো রোগ থাকলে নিশিন্দা পাতার রস কিংবা পাতা বেটে সরিষার তেলে পাক করে সে তেল ১ থেকে ২ ফোঁটা করে কানে দিন, রোগ ভালো হয়ে যাবে।