যশোর থেকে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার রুটে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট চালু

যশোর থেকে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট চালু করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। বৃহস্পতিবার সকালে যশোর বিমানবন্দর থেকে এই দুই রুটের ফ্লাইট উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী।

নতুন রুটে ফ্লাইট উদ্বোধন করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স তাদের ব্যবসা সম্প্রসারণের অংশ হিসেবে যশোর থেকে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে ফ্লাইট চালু করেছে। যশোর, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার অঞ্চলের ব্যবসা, পর্যটন ও শিল্প সম্প্রসারণ করতে এই ফ্লাইটগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। আমরা চাই বাংলাদেশের এয়ারলাইনগুলো এভাবেই বাংলাদেশের গণ্ডি পেরিয়ে পৃথিবীর সব দেশে বাংলাদেশের পতাকা বহন করে ফ্লাইট পরিচালনা করুক।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ২০১৪ সালে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স মাত্র ১৫০ জন স্টাফ নিয়ে যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে এয়ারলাইন্সটির বহরে ১৪টি নতুন এয়ারক্রাফট রয়েছে। আমরা এয়ারলাইন্সটির পরিধি আরও বড় করবো। আগামী ২ বছরের মধ্যে আরও ১৬টি ব্র্যান্ড নিউ এয়ারক্রাফট ক্রয় করে ফ্লাইট পরিচালনা করার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।

এর আগে প্রতিমন্ত্রী ফিতা কেটে যশোর-চট্টগ্রাম রুটের ফ্লাইটের উদ্বোধন করেন। এয়ারক্রাফটে ঢুকে যাত্রীদের সাথে মতবিনিময় করেন তিনি।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার যশোর থেকে সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে চট্টগ্রামের উদ্দেশে ও একই দিন বিকেল ৫টা ১০ মিনিটে চট্টগ্রামের হযরত শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যশোরের উদ্দেশে যাত্রার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

শনি, সোম, বুধ ও শুক্রবার যশোর থেকে দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে কক্সবাজারের উদ্দেশে ও কক্সবাজার থেকে বিকেল ৩টা ২৫ মিনিটে যশোরের উদ্দেশে যাত্রার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

সকল প্রকার ট্যাক্স ও সারচার্জসহ যশোর থেকে চট্টগ্রামে ওয়ানওয়ের ন্যূনতম ভাড়া ৬,০০০ টাকা ও রিটার্ন ভাড়া ১২,০০০ টাকা। এছাড়া যশোর থেকে কক্সবাজারে ওয়ানওয়ের ন্যূনতম ভাড়া ৬,৫০০ টাকা ও রিটার্ন ভাড়া ১৩,০০০ টাকা। অন্যদিকে সৈয়দপুর থেকে চট্টগ্রামের ওয়ানওয়ের ন্যূনতম ভাড়া ৬,২০০ টাকা ও রিটার্ন ভাড়া ১২,৪০০ টাকা।

খুব শিগগিরই সৈয়দপুর থেকে কক্সবাজার, সিলেট থেকে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানিয়েছে  ইউএস-বাংলা।

ইউএস-বাংলা এয়ালাইন্সের বিমান বহরে ১৪টি এয়ারক্রাফট রয়েছে, যার মধ্যে ৪টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, ৭টি ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০ ও ৩টি ড্যাশ ৮-কিউ৪০০।