কফি বাড়ায় স্মৃতিশক্তি,ঝরায় মেদ

কফি বিশ্বের জনপ্রিয়তম পানীয়। কফি পছন্দ করে না এমন মানুষ খুবই কম। তবে পছন্দের তালিকায় শীর্ষে থাকা কফি নিয়ে অনেকের আছে ভুল ধারণা। অনেকেরই ধারণা, নিয়মিত কফি পান করলে ক্ষতি হতে পারে। তবে এই ধারণা ঠিক নয়। 

বরং কফি পান করলে উপকার পাওয়া যাবে। কফি স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে। আলঝাইমার্স রোগ কমায়। সাহায্য করে শরীরের বাড়তি মেদ ঝরাতে। আজ ১ অক্টোবর বিশ্ব কফি দিবস। চলুন জানা যাক কফির কিছু উপকারী দিক।

গবেষণায় দেখা গেছে, ক্যাফেইন প্রায় ৩ থেকে ১১ শতাংশ পর্যন্ত আমাদের মেটাবলিক রেট বা বিপাকের গতি বাড়ায়। ফলে অতিরিক্ত মেদ কমে অনেকটাই।

টাইপ টু ডায়াবেটিসে যারা আক্রান্ত তারা যদি নিয়মিত কফি পান করে তাহলে ২৩ থেকে ৫০ শতাংশের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কম থাকে।

অনেকের ধারণা রয়েছে কফি খেলে লিভারের রোগ হয়। যদিও গবেষণায় দেখা যাচ্ছে সিরোসিস থেকে লিভারকে রক্ষা করে কফি। কফি মানবদেহে কার্যক্ষমতা বাড়িয়ে দেয় অনেকটাই। নর এপিনেফ্রিন এবং ডোপামিন নিঃসরণ বাড়ায় যা নিউরনের কার্যকারিতা বাড়িয়ে দেয়।

কফি সুনির্দিষ্টভাবে পান করলে পারকিনসন রোগও কমে যায় অনেকটাই। ৩২ থেকে ৬০ শতাংশ হ্রাস পায় এই রোগ। এছাড়া অবসাদ কমাতে কফি পান করলে অনেকটাই উপকার পাওয়া যায় বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। নিয়ন্ত্রিত কফি পানে কমে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকিও।