দুর্গাপুরে আগাছানাশক বিষপানে কিশোরের আত্মহত্যা

রাজশাহীর দুর্গাপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে আগাছানাশক বিষপানে জীবন আলী(১৬) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। দুর্গাপুর পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে ভাড়া বাড়িতে গত ২৮ সেপ্টেম্বর  বিষপানের ঘটনায় বৃহষ্পতিবার (৭আক্টবর) সকালে জীবন  মৃত্যু বরন করেন।

 

 

এলাকাবাসী ও পরিবার সুত্রে জানাযায়, বাবা ও সৎ মায়ের কাছে  গত ১ বছর ধরেই বাজার সংলগ্ন ভাড়া বাসাতেই থাকছিলো জীবন। তবে আপন মা রুবী বেগমের বাড়িতেও নিয়মিত যাতায়াত ছিলো।  গত ২৮ সেপ্টেম্বর চুল কাটা নিয়ে পিতা ও সৎ মায়ের সাথে বিরোধ হয় একপর্যায়ে পিতা মারধোর করলে। ঘরে গিয়ে আগাছা নাশক  (ঘাস মারা বিষ) খেয়ে বাড়ি থেকে চলে যায়।

 

মা রুবী বেগম খবর পেয়ে তাকে খোঁজাখুঁজি করে বের করে। তার মা হাসপাতালে নিতে চাইলে জীবন অস্বীকৃতি জানায়। কিছুক্ষণ পরে তার বমি হতে থাকে। সে তার মাকে বলে আমি ওই বাড়ি থেকে গোসল করে আসছি। বাবার বাড়িতে ফিরে রাতে প্রচন্ড অসুস্থ হয়ে পড়ে।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। সেখানে এক সপ্তাহব্যাপী চিকিৎসাধীন ছিলেন  বিষক্রিয়ার ফলে শরীরের কিডনি সহ অনেক অঙ্গ ড্যামেজ হয়ে যায়। পরবর্তীতে বাড়িতে নিয়ে এলে বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) সকাল ৭ টার দিকে মৃত্যুবরণ করেন।
এবিষয়ে দুর্গাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি হাশমত আলী জানান, এটি বিষ পানে আত্মহত্যা। পরিবারের কারো অভিযোগ না থাকায় লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়া হস্তান্তর করা হয়েছে। একটি অপমৃত্যু (UD) মামলা রুজু করা হয়েছে ।