আইপিএল অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত

একের পর এক করোনা পজিটিভের খবর আসায় আর বসে থাকতে পারল না ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই। অবশেষে করোনাভাইরাসের ছোবলের কারণে অনির্দিষ্টকালের জন্য আইপিএল স্থগিত করতে বাধ্য হলো তারা। খবরটি নিশ্চিত করেছেন আইপিএলের চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল।

আইপিএল অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত

ভারতের করোনা পরিস্থিতি এখন খুবই ভয়াবহ। করোনাভাইরাসে সংক্রমণ আর মৃত্যুর হার দিন দিন রেকর্ড ভেঙে চলেছে। গোটা দেশ যেন মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে।

চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে বেড পাওয়া যাচ্ছে না। শেষকৃত্যের জন্য শ্মশানে পাওয়া যাচ্ছে না জায়গা। মুমূর্ষু রোগীর জন্য আইসিইউ বেড আর অক্সিজেনের জন্য চলছে হাহাকার। ওষুধ আর চিকিৎসা সামগ্রীর দাম আকাশচুম্বী।

দেশের এমন করুণ পরিস্থিতিতে আইপিএল চালিয়ে যাওয়াটা অনেকেই ভালো চোখে দেখছিলেন না। তাই গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই আইপিএলের বিরুদ্ধে মতামত দিয়েছেন। কিন্তু শেষমেষ উপায়ান্তর না দেখে আইপিএল বন্ধের জন্য হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন আইনজীবী করন এস ঠকরাল ও ইন্দর মোহর সিং। তাদের পিটিশনের শুনানি ছিল বুধবার, ৫ মে। কিন্তু তার আগেই বন্ধ হয়ে গেল আইপিএল।

এর আগে খবর আসে করোনাভাইরাস ছোবল মেরেছে আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি চেন্নাই সুপার কিংসে। তবে ক্যাপ্টেন মহেন্দ্র সিং ধোনির দলের কোনো ক্রিকেটার কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হননি।

পজিটিভ রিপোর্ট আসে ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রধান নির্বাহী কাসি বিশ্বনাথন, বোলিং কোচ লক্ষ্মীপ্যাথি এল বালাজী ও এক বাস ক্লিনারের। আতঙ্ক ছড়ানো ভাইরাসে আক্রান্ত তিনজনকেই আইসোলেশন রাখা হয়েছে এখন। খবর শুনেই চেন্নাই সুপার কিংস অনুশীলন বন্ধ করে দেয় দলটি। 

তার আগে সাকিব আল হাসানের কলকাতা নাইট রাইডার্সের ক্যাম্পেও হানা দেয় করোনাভাইরাস। কোভিড-১৯ এ পজিটিভ হয়েছেন বিস্ময়কর স্পিনার বরুণ চক্রবর্তী ও ফাস্ট বোলার সন্দীপ ওয়ারিয়ার। ফলে স্থগিত হয়ে যায় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে কলকাতার ম্যাচটি। পরে স্থগিত হয়ে যায় রাজস্থান রয়্যালস-চেন্নাই সুপার কিংসের ম্যাচ। শেষে খবর আসে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ঋদ্ধিমান সাহাও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।