ঝিনাইদহে গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী পলাতক

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলায় এক নারীকে শ্বাস রোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। শনিবার (২৯ মে) সকালে গ্রামবাসীর কাছে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। তার স্বামী পলাতক রয়েছে। নিহত সাথী বেগম (১৯) উপজেলার দলিলপুর গ্রামের গোলাম মোস্তফার মেয়ে।

ঝিনাইদহে গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী পলাতক
প্রতীকী ছবি

বজনরা জানান, ৬ মাস আগে মাগুরার ঢালপাড়া গ্রামের সুজন বিশ্বাসের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। এরপর থেকে নানাভাবে স্ত্রীকে নির্যাতন করতো সুজন। বুধবার সাথী বাবার বাড়ি আসেন। তার স্বামীও আসেন সঙ্গে। শনিবার সকালে ঘরের ভেতর সাথীকে মৃত দেখা যায়। সাথীর কাছে সাথীর বাবার ৯০ হাজার টাকা ছিল। মহিষ কেনার জন্য। সেই টাকা পাওয়া যায়নি। সাথীর কানে রিং ছিল। তাও নেই। সুজন আমার মেয়েকে হত্যা করে পালিয়েছে।”
লাশ ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানান ওসি জাহাঙ্গীর আলম।