যশোরগামী লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুেই মোটরসাইকেল আরোহীর

মানিকগঞ্জে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সরে সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে মোটরসাইকেলটির দুই আরোহী নিহত ও অ্যাম্বুলেন্সটির চালক আহত হয়েছেন। শনিবার (১২ জুন) সকাল ৭টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার ভাটবাউর রহমান সিএনজি পাম্প এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

যশোরগামী লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুেই মোটরসাইকেল আরোহীর

নিহত মোটরসাইকেল চালক আব্দুল আলিম (২৬) জেলার শিবালয় উপজেলার দক্ষিণ পাচুরিয়া ইন্তাজগঞ্জ বাজার এলাকার মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে এবং মোটর সাইকেলটির আরোহী দীপক হালদার (২৫) একই উপজেলার কান্দা শাকরাইল গ্রামের দিনেশ চন্দ্র হালদারের ছেলে।

আব্দুল আলিম রাজধানীর তেজগাঁও আড়ং কার্যালয়ে চাকরি করতেন এবং দীপক হালদার তাঁতিবাজার এলাকায় একটি স্বর্ণের দোকানে কাজ করতেন। তারা দুজনই সাপ্তাহিক ছুটি কাটিয়ে মোটরসাইকেলে চড়ে কর্মস্থলে ফিরছিলেন।

আহত অ্যাম্বুলেন্সটির চালক রনি মিয়া (৩০) যশোর জেলার কোতোয়ালী উপজেলার গোপপাড়া গ্রামের মনু মিয়ার ছেলে।

গোলড়া হাইওয়ে থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, সকাল ৭টার দিকে মোটরসাইকেল এবং যশোরগামী লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সের (ঢাকা মেট্রো ছ-৭১-২৪৩৫) সঙ্গে ঢাকাগামী মোটরসাইকেলের (ঢাকা মেট্রো হ ১৪-৮৮১১) মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান মোটরসাইকেলটির দুই আরোহী এবং আহত হন অ্যাম্বুলেন্সটির চালক।

আহত অ্যাম্বুলেন্স চালককে রনি মিয়াকে প্রথমে মানিকগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে গুরুতর অবস্থায় সেখান থেকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

নিহতদের মরদেহ হাসপাতালটির মর্গে নেওয়া হয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত অ্যাম্বুলেন্স ও মোটরসাইকেলটি জব্দ করে গোলড়া থানায় রাখা হয়েছে।

দুর্ঘটনাকবলিত অ্যাম্বুলেন্সে থাকা লাশটি অন্য একটি অ্যাম্বুলেন্সে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানান ওসি মনিরুল ইসলাম।