ভাল কাজের প্রলোভনে ভারতে পাচার দুই তরুনীকে বেনাপোলে হস্তান্তর

ভারতে পাচার হওয়া দুই তরুনীকে ৬ বছর পর বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতীয় পুলিশ। মঙ্গলবার (২০ জুলাই) বিকালে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদেরকে ট্রাভেল পারমিট প্রক্রিয়ায় বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। ফেরত আসারা হলো, যশোর অভয়নগর থানার বাসয়াড়ি উপজেলার শহিদ বিশ্বাসের মেয়ে মরিয়ম খাতুন (২৬) ও সিরাজগঞ্জ জেলার দুরর্গানগর উপজেলার উল্লাপাড়া গ্রামের বেল্লাল হোসেনর মেয়ে মৌসুমি খাতুন (২৫)।

ভাল কাজের প্রলোভনে ভারতে পাচার দুই তরুনীকে বেনাপোলে  হস্তান্তর
বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মুজিবর রহমান জানান, ইমিগ্রেশনে কাগজ পত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে আইনী সহয়তা দিতে ঐ তরুনীদের জাস্টিস এন্ড কেয়ার নামে একটি এনজিও সংস্থ্যা গ্রহন করেছে।
তরুনীদের গ্রহনকারী এনজিও সংস্থ্যা জাস্টিস এন্ড কেয়ারের যশোর শাখার ফিল্ড অফিসার রোকেয়া খাতুন জানান,ভাল কাজের প্রলোভনে দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে ঐ তরুনীরা ভারতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। এসময় পাচারকারীরা তাকে ভাল কাজ না দিয়ে বোম্বাই  শহরে ঝুকি পূর্ণ কাজে ব্যবহার করে। খবর পেয়ে ভারতীয় পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে। পরে অবৈধ অনুপ্রবেশ আইনে মামলা দিয়ে আদালতে সোপর্দ করে। সেখান থেকে ভারতীয় বোম্বাই রিমান্ড গায়ঘাট পাটনার নমে একটি  এনজিও সংস্থ্যা তাদেরকে ছাড়িয়ে নিজেদের হেফাজতে রাখে। পরে রাষ্ট্রীয় প্রক্রিয়ায় ট্রাভেল পারমিটে তাদের দেশে ফেরত পাঠানো হয়।