ঈদের দিন ঘুরতে বেরিয়ে গণধর্ষণের শিকার যুবতী

গোপালগঞ্জে ঈদের দিন ঘুরতে বেড়িয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হলেন এক তরুণী। গতকাল বুধবার (২০ জুলাই) সন্ধ্যায় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোপীনাথপুর রেল স্টেশনের কাছে এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার ওই নারীর বাড়ি নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার নড়াগাতি গ্রামে। তিনি ঈদ উপলক্ষে গোপীনাথপুর গ্রামে বড় বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। এ ঘটনায় গোপালগঞ্জ সদর থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষক গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলিয়া গ্রামের শওকত মুসল্লির ছেলে শরিফুল মুসল্লীকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে। বাকি দুই অভিযুক্ত পলাতক।

ঈদের দিন ঘুরতে বেরিয়ে গণধর্ষণের শিকার যুবতী
ছবি প্রতীকী

গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, ধর্ষণের শিকার ২১ বছর বয়সী ওই তরুণী জানিয়েছেন, ঈদের দিন বিকালে ১১ বছর ও ৭ বছর বয়সী দুই ভাগ্নেকে নিয়ে রেল লাইনে ঘুরতে বের হন তিনি। সন্ধ্যার দিকে হাজির হন ওই তিন যুবক। তারা ভাগ্নেদের সামনে থেকে মেয়েটিকে রেল লাইনের নিচে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন বলে পুলিশের কাছে অভিযোগ দেন তরুণী। পুলিশ অভিযোগটি আমলে নিয়ে দ্রুত আসামিদের গ্রেপ্তার করতে অভিযানে নামে। বুধবার গভীর রাতে শরিফুলকে তার বাড়ির এলাকা থেকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। বাকি দুই আসামি পলাতক রয়েছেন। তাদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

তিনি আরো বলেন, ঘটনাটি যেহেতু রেল লাইনে ঘটেছে সেহেতু মামলা ও আসামি রেল পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তাদের খবর দেয়া হয়েছে। পরবর্তী পদক্ষেপ রেল পুলিশ গ্রহণ করবে।